দুই লাইনের কবিতারা

হুইস্পার
●●
তোমার সৌরভ,
যেন ঘোর অন্ধকারে নীরবতার কর্ণভেদী ফিস্ ফিস্।
***

থান্ডার
●●
তুমি বজ্রধ্বনি,
ভগ্ন হৃদয়কে নির্মাণ করো, আমাকে করো দুই ভাগ।
***
সিম্ফোনি
●●
তোমার অম্লমধুর মিথ্যারা
কর্ণকুহরে বাজিয়ে যায় মহা ঐকতান।
***
অপটিমিজম
●●
ইঙ্গিতপূর্ণ আদিম স্রোতের টানে,
সীমাহীন সমুদ্র তটে একত্রে হেঁটে বেড়াব দু’জন।
***
মিউজ
●●
একবার যদি হৃদয় ভাঙো,
কবিতারা আমরণ এসে ভির জমাবে কলমের আগায়।
***
থর্ণস
●●
তোমার ছোঁয়ায় আমার সিদ্ধিলাভ,
কিন্তু ডজন ডজন কাঁটা পরিহিত তোমার উভ’হাত।
***
ক্যামোফ্লেজ
●●
ছদ্মবেশী প্রণয়ী,
হৃদপিণ্ডভেদী বুলেটকেও ডজ দাও অলৌকিক ভালোবাসায়।
***
বিউটি
●●
তোমার সৌন্দর্য,
তাকে প্রভাবিত করতে দাও আমার চিন্তার স্থাপত্যকে।
***
ড্যান্সিং
●●
তোমার শরীর যেন গীতবাদ্য,
তুমি নড়াচড়া থামিয়ে দিলে বিলীন হবে সুরের অস্তিত্ব।
***
কাস্টএওয়ে
●●
বিচ্ছিন্ন দ্বীপে দু’জনে পাড়ি দিব অন্তহীনতা,
বড়শী হাতে মাছের বদলে শিকার করব অনুভূতি।
***
ওয়ার্ডস
●●
তোমার চোখের তারায়
বিম্বিত ব্রহ্মাণ্ড মুখরিত হয় আমার কবিতার শব্দে।
***
ওয়ার্মথ
●●
হিম হিম শীতে স্পর্শকাতর চুমুরা
গ্রীষ্মের উষ্ণতা জাগায় হৃদপিণ্ডে।
***
ডিসটেন্স
●●
তুমি থেকে আমি,
সহস্র আলোর শ্লোকে নেচে উঠে দূরত্ব।
***
টেস্টামেন্ট
●●
বরফের গায়ে অগ্নি অক্ষরে
লিখে যাব তোমার নাম, জ্বলজ্বল করবে মিলেনিয়াম শেষে।
***
স্কাল্পচার
●●
তোমার নমনীয় অবয়ব,
সহস্র বছর ব্যয়পূর্বক কঠিনতম পাথরের উদর থেকে ক্ষোদিত ভাস্কর্য।
***
মাউথলেস
●●
তোমার জন্যে,
হৃদপিণ্ডে সহস্র শব্দ নিয়ে নীরবতার চোরাগলিতে হারিয়ে যায় ভালোবাসা।
***
লিভিং
●●
তুমি ঘুমে বিভোর,
তোমার শয্যাপাশে দাঁড়ানোর জন্য ব্যাকুল চরণযুগল নিয়েও আমি দিব্যি বেঁচে থাকি।

Comments

comments

100 views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *