ভাবো মাঠের ঐ শাপলাগুলোর কথা

ফুলগুলো ঘোষণা দেয়, উপদেশ দেয়, যদি আমরা শুনিঃ
শিশির সিক্ত ভোরে গোলাপটা বলে উঠেঃ
আমিই সুন্দরতম;
অথচ আমার সবটুকু প্রাণবন্ততা
জন্ম নেয় একটা কাঁটার উপর।
শস্যের মধ্য থেকে পপি ফুলটা বলে উঠেঃ
দেখো আমার অত্যুজ্জ্বল লালবর্ণের মাথাটা, দৃশ্যমান
আর আমি পড়ে থাকি তাচ্ছিল্যে;
তথাপি আমার কৌতূহলী রঙ্গের কাপে
টলমল করে সূক্ষ্ম গুনে গুণান্বিত রস।
শাপলারা বলেঃ দেখো কি করে আমরা
বানী ছড়াই পবিত্রতার কোন শব্দ ছাড়াই।
নিজের পাতার ছায়ার আড়াল থেকে
বেগুনী ফুলগুলো ফিসফিসিয়ে বলেঃ
লোকজন আমাদের সৌরভ ছড়িয়ে দেয় বাতাসে
অথচ আমাদের দেয়া বিনয়ী শিক্ষায়
তাঁরা কোন কর্ণপাতই করে না।
শুধু ঐ সুন্দরতম ফুল গুলোই নয়ঃ
রাস্তার পাশে গজানো তুচ্ছ ঘাস,
ছত্রাক, শৈবাল আর শক্ত আগাছা,
সবাই বলে বেড়ায় তাঁর ভালোবাসার গল্প,
বলে বেড়ায় তাঁর কথা যে পাঠায় ভোরের শিশির কণা,
বৃষ্টি আর রোদের আলো,
যে আলোয় পরিপুষ্ট হয় একটা ক্ষুদ্র বীজ।

তর্জমা
০৩/০৪/২০১৬
মূলঃ কনসিডার দ্যা লিলিজ অফ দ্যা ফিল্ড— ক্রিস্টিনা রসেটি

Comments

comments

563 views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *